a man cooking in the kitchenPhoto by Kampus Production on <a href="https://www.pexels.com/photo/a-man-cooking-in-the-kitchen-8629098/" rel="nofollow">Pexels.com</a>

যখন রক্তে শর্করার মাত্রা বেড়ে যায়, তখন আমাদের খাবার-দাবারে কিছু বিধিনিষেধ থাকে। তা না হলে ডায়াবেটিসের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করা কঠিন। কম প্রক্রিয়াজাত খাবার, তেল এবং মশলা, ভাল. চিকিৎসকরাও একই কথা বলেন। বাড়িতে খাবার রান্না হলেও তা রান্না করতে ব্যবহৃত তেলও গুরুত্বপূর্ণ। তাহলে জেনে নিন কোন তেলে রান্না করবেন, এতে চিনির মাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকবে।

অ্যাভোকাডো তেলে রয়েছে উপকারী মনোস্যাচুরেটেড ফ্যাট, যা রক্তে শর্করার মাত্রা বাড়াতে বাধা দেয়। অ্যাভোকাডো তেল কোলেস্টেরল রোগীদের জন্যও স্বাস্থ্যকর। উচ্চ রক্তচাপ থাকলেও এটি খাওয়া যেতে পারে।
অলিভ অয়েলে সব ধরনের উপকারী উপাদান রয়েছে। এতে উপস্থিত চর্বি রক্তে শর্করার মাত্রা বাড়াতে দেয় না। অলিভ অয়েল শুধু ডায়াবেটিস রোগীদের জন্যই নয়, হার্টের সমস্যায় ভুগছেন তাদের জন্যও খুবই উপকারী।

ওজন কমানোর জন্য অনেকেই নিয়মিত ফ্ল্যাক্সসিড খান। এছাড়া তিসির তেলও শরীরের জন্য উপকারী। এতে রয়েছে ওমেগা ৩ ফ্যাটি এসিড। এই উপাদানটি চিনির মাত্রা নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে।

পিনাট বাটার শরীরের যত্নে খুবই স্বাস্থ্যকর। ডায়াবেটিস থাকলে বাদাম তেলে রান্না করা খাবার খাওয়ার অভ্যাস করতে পারেন। এই তেলে উপকারী মনোস্যাচুরেটেড ফ্যাটও রয়েছে। এটি হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়। কোলেস্টেরলের মাত্রাও নিয়ন্ত্রণে থাকে।

TRAVONEWS BANGLA সবার আগে পড়ুন ব্রেকিং নিউজ। থাকছে দৈনিক টাটকা খবর, খবরের লাইভ আপডেট। সবচেয়ে ভরসাযোগ্য বাংলা খবর পড়ুন https://bangla.travonews.in ওয়েবসাইটে

-Travo News for More

Like and Subscribe Youtube

Whatsapp

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Verified by MonsterInsights