[ad_1]

মুর্শিদাবাদঃ নবাবের জেলার মনোহরা খেয়েছেন কখনও? জনাইয়ের মনোহরার নাম শোনেননি এমন ব্যক্তি কেউ আছেন কি? বোধহয় না। শুধু জনাই নয় মুর্শিদাবাদের কান্দি ও বেলডাঙার মনোহরাও বিখ্যাত। মুর্শিদাবাদ জেলার কান্দির প্রায় সব মিষ্টির দোকানে এই মনোহরার কদর চরমে। প্রায় প্রত্যেকটি মিষ্টির দোকানে এই মনোহরা তৈরি হয় অত্যন্ত যত্নশীল ভাবে। শুধু কান্দি তথা মুর্শিদাবাদ জেলায় নয়, রাজ্য তথা দেশের বাইরে এমনকি আমেরিকা পর্যন্ত এই মনোহরার কদর।

মনোহরা মিষ্টিকে অনেকে চাউনি সন্দেশও বলে থাকেন। মনোহরা প্রস্তুতকারক একটি মিষ্টির দোকানদার জানান ক্ষীর, চাঁছি, দুধ, চিনি দিয়ে এই মনোহরা অত্যন্ত যত্নশীল উপায়ে তৈরি করা হয়। মনোহরা দেখতে ঠিক উল্টো একটা কলসি, আর তার মাথায় একটি কিশমিশ। বর্তমানে দেশ বিদেশ থেকে বহু পর্যটক মুর্শিদাবাদের কান্দি বেড়াতে আসেন। আর সেখানে গেলে মনোহর না নিয়ে কেউ যান না।

স্বাদে-গন্ধে মনোহরা আর কান্দি ওতপ্রোত ভাবে একে অপরের পরিপূরক। জানা যায়, মনোহরার মূল উপকরণ ছানা, চিনি, পেস্তা, এলাচ ও দুধ। এছাড়া ডাবের শাসও ব্যবহার করা হয়। ছানার সঙ্গে মিহি করা চিনি ও ছোট এলাচ মিশিয়ে তা আগুনে জ্বাল দেওয়া হয়ে থাকে। খেয়াল রাখতে হয় যাতে মিশ্রণটিতে দানা ভাব থাকে। মিশ্রণটা ক্রমশঃ গাঢ় হয়ে মাখা সন্দেশের মতো হলে তা আগুন থেকে নামিয়ে রাখা হয়। মিশ্রণটি ঠান্ডা হলে তা থেকে মন্ড প্রস্তুত করা হয়। মন্ড থেকে কিছুটা করে মিশ্রণ হাতের তালুতে নিয়ে গোল্লা পাকানো হয়। তারপর গোল্লাগুলিতে পেস্তা ও এলাচের গুঁড়ো মাখানো হয়।

অন্যদিকে, ঘন চিনির রস জ্বাল দিয়ে একটি করে গোল্লা সেই রসে ডুবিয়েই তা তুলে রাখা হয় কলাপাতার উপর। মিনিট চারেকের মধ্যে ঘন চিনির রসের প্রলেপটি শুকিয়ে একটি শক্ত আস্তরণে পরিণত হয়। মনোহরার মূল উপকরণ সরচাঁছি, ক্ষীর, চিনি ও সুগন্ধী মশলা। সরচাঁছি ও ক্ষীর সুগন্ধী মশলাসহ ভালো করে মেশানো হয়। তারপর সেই মিশ্রণের গোল্লা পাকানো হয়। গোল্লার উপর দেওয়া হয় পাতলা চিনির আস্তরণ। মন হরণ করা মিষ্টি মনোহরা। অতুলনীয় স্বাদে একবার যিনি মজেছেন, তিনি আর অন্য মিষ্টিতে যাবেন কি? তাই মুর্শিদাবাদ জেলাতে ঘুরতে এলে একবার খেয়ে দেখতেই হবে এই মনোহরা।

TRAVONEWS BANGLA সবার আগে পড়ুন ব্রেকিং নিউজ। থাকছে দৈনিক টাটকা খবর, খবরের লাইভ আপডেট। সবচেয়ে ভরসাযোগ্য বাংলা খবর পড়ুন TRAVONEWS.IN বাংলার ওয়েবসাইটে

Travo News

for More

Like, Subscribe and Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Verified by MonsterInsights